কলারোয়ার মেয়র প্রার্থী মজনু চৌধুরীর গদখালী ও ঝিকরা ওয়ার্ডে মতবিনিময় অনুষ্ঠিত

ফিরোজ জোয়ার্দ্দার÷

আগামী ডিসেম্বরে পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হওয়ায় পর থেকে পৌরসভার মেয়র প্রার্থীরা নির্বাচনের জন্য মতবিনিময় শুরু করে দিয়েছেন। দলীয় প্রার্থী হিসেবে ইতিমধ্যে সম্ভাব্য

প্রার্থীরা আওয়ামীলীগের হাইকমান্ডে তৌড়ঝাঁপ চালিয়ে যাচ্ছেন। সেই মোতাবেক সাতক্ষীরার কলারোয়া পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে সাধারণ মানুষের সাথে মতবিনিময় করে বিজয়ী হওয়ার লক্ষ্যে দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশা কামনায় সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা ও কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী মজনু মতবিনিময় করেন গদখালী ও ঝিকরা দুটি ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষের সাথে।
বৃহস্পতিবার ৩রা সেপ্টেম্বর সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রথমে পৌরসদরের নিজ গ্রাম ৩নং গদখালী ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষের সাথে পৌর নির্বাচন উপলক্ষে মাঠপাড়া রব্বানীর চায়ের দোকানের সামনে এ মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
পরে ঝিকরা ৫ নং ওয়ার্ডে আগামী পৌর নির্বাচন উপলক্ষে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথী হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু।

কলারোয়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা ও কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী মজনু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলিমুর রহমান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান মোস্ত, ছাত্রলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম শিমুল, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাগণ আয়জুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, ছোট লাল্টু, নাসির উদ্দিন মনিরুল ইসলাম মনিসহ ছাত্রলীগ যুবলীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দসহ দুই ওয়ার্ডের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমুখ।
সমগ্র মতবিনিময় সভা পরিচালনা করেন ঝিকরা ৫নং ওয়ার্ডের প্রাইমারী স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার৷
গদখালী ও ঝিকরা ওয়ার্ডের সর্বস্তরের মানুষের সাথে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে তিনি মতবিনিময় চালিয়ে গেছেন এবং তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা গুরুত্ব দিয়ে শোনেন।
এ সময় মেয়র প্রার্থী সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী মজনু বলেন, আগামী কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা বাংলাদেশ উন্নয়নের রূপকার জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি তাকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেন তাহলে নিশ্চিত বিজয়ী হয়ে তিনি শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে পৌরবাসীর উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাবেন।